Image
1 month ago 0 comments

রাজশাহীর চরাঞ্চল থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ

রাজশাহীর পদ্মার চররাঞ্চল থেকে লোকজনকে সরিয়ে নিতে জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ত্রাণ ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় থেকে জেলা প্রশাসকদের এ নির্দেশ দেয়া হয় বলে ফেসবুক স্ট্যাটাসে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও রাজশাহী-৬ আসনের এমপি শাহরিয়ার আলম এমপি।

সোমবার রাত পৌনে ৮টার দিকে নিজের ফেসবুক স্ট্যাটারে প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম জানিয়েছেন, ‘‘পদ্মা নদীর পানি ৫ তারিখ পর্যন্ত বাড়তে পারে, তারপর কমা শুরু হতে পারে।’’

তিনি আরও বলেছেন, ঢাকায় কথা বলে প্রথম দফায় কিছু ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। একটু আগে ত্রাণ ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা প্রতিমন্ত্রীর সাথে বিস্তারিত কথা হয়েছে। আমি রাজশাহীর জেলা প্রশাসককে নির্দেশনা দিয়েছি গোদাগাড়ী ও পবাসহ সকল চরাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হলে (প্রয়োজন হলে) মানুষ সরিয়ে মুল ভুখন্ডে কয়েকদিনের জন্য নিয়ে আসার জন্য। এর জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি রাখতে বলা হয়েছে। মন্ত্রনালয় থেকে দ্রুত এবং বাড়তি বরাদ্দ দেয়া হচ্ছে। স্থানীয় উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজগুলো করবেন।

ফারাক্কা বাধের সব গেট খুলে দিয়েছে ভারত বলে দেশটির গণমাধ্যমগুলো এমন খবর দিয়েছে। তবে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের কাছে এ ধরণের কোন তথ্য নেই। তারা জানিয়েছেন, বর্ষায় ফারাক্কার প্রায় সব গেট খোলা থাকে। বর্ষার সময় কখনো ৮০ আবার কখনো ৯০টি খুলে দেয়া হয়। সেটি নির্ভর করে দেশের বৃষ্টিপাত ও বন্যার উপর।

হঠাৎ করে সব গেট খুলের দেয়ার বিষয়ে রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী (চলতি দায়িত্ব চাঁপাইনবাগঞ্জ) শাহিদুল আলম বলেন, সোমবার সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত এক দিনে ১১ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়েছেন। এতে ধারণা করা হচ্ছে হয়তো আরও কিছু গেট খুলে দেয়া হয়েছে। এছাড়াও টানা বর্ষনের কারণেও পদ্মার পানি বেশী বৃদ্ধি পাচ্ছে।

তিনি জানান, বর্তমানে রাজশাহী পয়েন্টে পদ্মায় পানি প্রবাহিত হচ্ছে ১৭ দশমিক ৯৮ সেন্টিমিটারে। দুই দিন দিনের মধ্যে বিপদ সিমা ১৮ দশমিক ৫০ সেন্টিমিটার অতিক্রাম করতে পারে।

এদিকে, ভারতের জি২৪ ঘন্টা বলছে, উত্তর প্রদেশ ও বিহারে রেকর্ড বৃষ্টিতে উপচে পড়ছে বাঁধের জল। ফলে ফরাক্কা বাঁধের সবক’টি লকগেট এক সঙ্গে খুলে দিল কর্তৃপক্ষ। সোমবার ফরাক্কা ব্যারেজের ১০৯টি লকগেটই খুলে দেয় কর্তৃপক্ষ। এর জেরে মুর্শিদাবাদ একাংশ ও বাংলাদেশে প্লাবনের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। গঙ্গা ছাড়াও মালদা জেলায় প্রায় সমস্ত নদীতে জল বাড়ছে।


Source: Padmatimes24

Post

জাতীয় শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, রাজশাহী জেলা

6 months ago

কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের উদ্যোগে দেশব্যাপী শুরু হয়েছে জাতীয় শিশু-কিশোর চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ২০১৯ ।
জেলা পর্যায়ের বাছাইয়ে এবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে [...]

Post

রাজশাহীতে আমেরিকান কর্নারের উদ্বোধন

7 months ago

রাজশাহীতে ‘আমেরিকান কর্ণার’ এর উদ্বোধন করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার। বেসরকারি বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজশ [...]

Post

রাজশাহী ই-কমার্স মেলা "ই-কমার্সের ডাক"

7 months ago

সময়ঃ সকাল ১০:০০ থেকে রাত ৮:০০ টা

তারিখঃ ০৬-০৪-২০১৯ (শনিবার)

স্থানঃ রাজশাহী জিপিও, গ্রেটার রোড, রাজশাহী

ই-কমার্সের ডাক এখন রাজশাহীতে!
ই-কমার্স কোম্ [...]

মন্তব্য করুন